ময়মনসিংহ, ১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ । ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

চুরি হল হাঁসের বাচ্চা, শিশুকে মারধরের দায়ে আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশিত: মে ১৩, ২০২০

ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলায় হাঁসের বাচ্চা চুরি গেছে এমন অপবাদ দিয়ে এক শিশুকে মারধর করে গুরুতর আহত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে এ ঘটনায় শিশুটির বড় ভাই রুহুল আমিন বাদী হয়ে নূরুল্লাহ ও তার চাচা হাসেম উদ্দিনকে আসামি করে একটি মামলা করেছেন।

১২ বছর বয়সী শিশুটির নাম ইজাজুল। সে ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার দাতারাটিয়া গ্রামের আ. সাত্তারের ছেলে। অভিযুক্ত নূরুল্লাহ নান্দাইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, প্রতিবেশী নূরুল্লাহর সঙ্গে ইজাজুলের পরিবারের দীর্ঘদিন ধরে শত্রুতা চলছে। চারদিন আগে নূরুল্লাহর একটি রাজহাঁসের বাচ্চা হারিয়ে যায়। নূরুল্লাহর সন্দেহ বাচ্চাটি ইজাজুল চুরি করে বাজারে বিক্রি করে দিয়েছে।

সোমবার স্থানীয় দাতারাটিয়া বাজার থেকে ইফতার নিয়ে বাড়ি ফিরছিল ইজাজুল। পথে তাকে আটকিয়ে মারধর করে গুরুতর আহত করেন নূরুল্লাহ ও তার চাচা হাসেম উদ্দিন। রাতেই ইজাজুলের শারিরীক অবস্থা খারাপ হলে রাত ২টার দিকে তাকে নান্দাইল উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নূরুল্লাহ বলেন, ছেলেটি চোর। সে আমার হাঁসের বাচ্চা চুরি করেছে, একারণে তাকে আমি বকেছি, তবে মারধর করিনি।

নান্দাইল উপজেলা হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক দেবাশীষ দাস বলেন, মারধরের কারণে ছেলেটির অবস্থা ভাল না থাকায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ হাসপাতালে নিয়ে যেতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

নান্দাইল মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) আবুল হাসেম মামলা দায়েরের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এই বিভাগের সর্বশেষ