ময়মনসিংহ, ১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ । ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগণায় তাণ্ডব চালিয়ে দুর্বল আমফান এখন রংপুরে

প্রকাশিত: মে ২১, ২০২০

পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী জেলা দক্ষিণ ২৪ পরগণায় গতকাল দুপুরের পর আঘাত হানে ঘুর্ণিঝড় আমফান। এরপর আরও উপরে গিয়ে আঘাত হানে উত্তর ২৪ পরগণায়। দুই জেলায়ই তাণ্ডবলীলা চালায় আমফান।

প্রায় তিন মিটার উচ্চতার ঢেউয়ে প্লাবিত হয় অনেক এলাকা। অসংখ্য বাড়িঘর, গাছ ভেঙে গিয়েছে। উপড়ে গেছে বিদ্যুতের খুটি। যোগাযোগ ব্যবস্থাসহ ইন্টারনেট ও টেলিফোনের মত সেবা সম্পূর্ণ ভেঙ্গে পড়ে। বেশিরভাগ জায়গায় নেই বিদ্যুৎ। রাত পর্যন্ত ১২ জন মারা গেছে।

এর আগে এরকম ধ্বসাত্মক ঝড় দেখা গিয়েছিল ১৮৭৬ সালে বরিশালের বাকেরগঞ্জে। অনেক বছর পর আমফানই তার সমকক্ষ হল।

পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী জেলা দক্ষিণ ২৪ পরগণায় গতকাল দুপুরের পর আঘাত হানে ঘুর্ণিঝড় আমফান। এরপর আরও উপরে গিয়ে আঘাত হানে উত্তর ২৪ পরগণায়। দুই জেলায়ই তাণ্ডবলীলা চালায় আমফান।
প্রায় তিন মিটার উচ্চতার ঢেউয়ে প্লাবিত হয় অনেক এলাকা। অসংখ্য বাড়িঘর, গাছ ভেঙে গিয়েছে। উপড়ে গেছে বিদ্যুতের খুটি। যোগাযোগ ব্যবস্থাসহ ইন্টারনেট ও টেলিফোনের মত সেবা সম্পূর্ণ ভেঙ্গে পড়ে। বেশিরভাগ জায়গায় নেই বিদ্যুৎ। রাত পর্যন্ত ১২ জন মারা গেছে।
এর আগে এরকম ধ্বসাত্মক ঝড় দেখা গিয়েছিল ১৮৭৬ সালে বরিশালের বাকেরগঞ্জে। অনেক বছর পর আমফানই তার সমকক্ষ হল।

মধ্যরাতে এটি ঝিনাইদহ ও এর আশেপাশে অবস্থান করছিল। এরপর আরও উত্তরদিকে সরে রাজশাহী ও পাবনার দিকে আসে। পরবর্তীতে উত্তরপূর্ব দিকে সরে সকাল পৌনে নয়টায় এটি রংপুর অঞ্চলের দিকে দুর্বল হয়ে স্থল নিম্পচাপ রূপে অবস্থান করছে। সকল বিপদ সংকেত তুলে ফেলে এখন ৩ নম্বর বিপদ সংকেত দেখিয়ে চলতে বলা হয়েছে।

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে ৯ জনের মৃত্যু সংবাদ পাওয়া গেছে।

এই বিভাগের সর্বশেষ